আজ বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯, ০১:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
«» “একজন স্বেচ্ছাসেবী,নিয়মিত রক্তদাতা সাদিয়া ক্যান্সারে আক্রান্ত, আর্থিক ভাবে সকলেই এগিয়ে আসুন”  «» ইউনানী/হোমিওপ্যাথিক ডাক্তার-ফার্মাসিস্ট সহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে বিশাল নিয়োগ «» ঢামেকে ব্রাদার ও মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের সংঘর্ষে আহত ২৫ «» আগামী সাতদিন খুবই চ্যালেঞ্জিং : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর «» বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থোপেডিক হাসপাতাল নিটোরের গল্প «» শুকরের চর্বিতে উৎপাদিত তেলে আক্রান্ত হচ্ছে আমাদের হৃদপিণ্ড! «» প্রাকৃতিক উপায়ে এডিস মশা থেকে মুক্তির উপায় «» ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত নতুন রোগী প্রায় ২ হাজার «» স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরেই হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী «» এবার ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসক লাঞ্ছিত

মাহমুদউল্লাহর চোট কতটা গুরুতর?

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ চলার সময়ই দুশ্চিন্তায় টাইগার ভক্ত সমর্থকরা। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ যে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে রান নিচ্ছিলেন। অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডার যদিও মাঠ থেকে উঠে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেননি তখন।

তবে খুব একটা স্বস্তিতে যে ছিলেন না বোঝাই যাচ্ছিল। পুরোটা সময়ই তাকে খোঁড়াতে দেখা যায়। তারপরও দলের প্রয়োজনে ব্যাটিং করেছেন। যে পিচে ব্যাটসম্যানদের রান তুলতে হাঁসফাঁস করতে হয়েছে, সেখানে মাহমুদউল্লাহর ২৭ রানকে একেবারে ফেলনা ভাবার উপায় নেই, বরং খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

কিন্তু ব্যাটিং করলেও মাহমুদউল্লাহ ফিল্ডিংয়ে নামলেন না। দুশ্চিন্তার বিষয়টা সেখানেই। বোঝাই যাচ্ছে, চোটটা নিয়ে ভাবার আছে। কি অবস্থা মাহমুদউল্লাহর? তার চোট কি বেশ গুরুতর?

গতকাল (সোমবার) স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টার দিকে (বাংলাদেশ সময় রাত প্রায় ১২টার পর) প্রেস কনফারেন্সে সাকিব আল হাসানের পাশে বসে থাকা দলের মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানিয়েছিলেন, ‘ম্যাচ চলাকালীনই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের কাফ মাসলে স্ক্যান করানো হয়েছে। তবে রিপোর্ট এখনও আসেনি। সেটা পেলে ফিজিও আমাদের জানাবেন, আমরা আপনাদের জানিয়ে দেব।’

এটুকু বলেই শেষ করেন রাবিদ ইমাম। তারপর আজ (মঙ্গলবার) সকালেও সাউদাম্পটন সময় সকাল সাড়ে সাতটা পর্যন্ত কোনো অফিসিয়াল আপডেট নেই। তবে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ইনজুরি খুব গুরুতর নয়, গ্রেড ওয়ান টিআর। সাধারণত সপ্তাহখানেক বিশ্রামেই এমন চোট সেরে যায়।

সেক্ষেত্রে আশার আলো দেখতেই পারেন টাইগার ভক্ত-সমর্থকরা। বাংলাদেশের আগামী ম্যাচ ভারতের বিপক্ষে, ২ জুলাই বার্মিংহামে। হাতে এখনও এক সপ্তাহের মতো সময় আছে। গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচটিতে খেলার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে মাহমুদউল্লাহর।

আপনার মন্তব্য লিখুন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :