আজ বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯, ০২:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
«» “একজন স্বেচ্ছাসেবী,নিয়মিত রক্তদাতা সাদিয়া ক্যান্সারে আক্রান্ত, আর্থিক ভাবে সকলেই এগিয়ে আসুন”  «» ইউনানী/হোমিওপ্যাথিক ডাক্তার-ফার্মাসিস্ট সহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে বিশাল নিয়োগ «» ঢামেকে ব্রাদার ও মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের সংঘর্ষে আহত ২৫ «» আগামী সাতদিন খুবই চ্যালেঞ্জিং : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর «» বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থোপেডিক হাসপাতাল নিটোরের গল্প «» শুকরের চর্বিতে উৎপাদিত তেলে আক্রান্ত হচ্ছে আমাদের হৃদপিণ্ড! «» প্রাকৃতিক উপায়ে এডিস মশা থেকে মুক্তির উপায় «» ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত নতুন রোগী প্রায় ২ হাজার «» স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরেই হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী «» এবার ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসক লাঞ্ছিত

১৬ কোটি টাকা আত্মসাৎ, সিভিল সার্জনসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

সাতক্ষীরা সদর ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যন্ত্রপাতি ক্রয়ে জালিয়াতি ও প্রতারণা করে ১৬ কোটি ৬১ লাখ ৩১ হাজার ৮২৭ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে নয়জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মামলার আসামিরা হলেন- সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জ ডা. তাওহীদুর রহমান, সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের একেএম ফজলুল হক (স্টোর কিপার), আনোয়ার হোসেন (হিসাবরক্ষক), জাহের উদ্দিন সরকার (প্রোপাইটর, মেসার্স বেঙ্গল সায়েন্টিফিক অ্যান্ড সার্জিকেল কোং), মো. আব্দুর ছাত্তার সরকার (ফুলবাড়ী, দিনাজপুর), মো. আহসান হাবিব (ফুলবাড়ী, দিনাজপুর), মো. আসাদুর রহমান (ফুলবাড়ী, দিনাজপুর), কাজী আবু বকর সিদ্দীক (মাদারীপুর) এবং এএইচএম আব্দুস কুদ্দুস (সহকারী প্রকৌশলী, নিমিউ অ্যান্ড টিসি, ঢাকা)।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, আসামিরা পরস্পর যোগসাজসে ক্ষমতার অপব্যবহারপূর্বক অসৎ উদ্দেশ্যে পূর্বপরিকল্পিতভাবে সদর হাসপাতাল, সাতক্ষীরাসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের যন্ত্রপাতির কোনো ধরনের চাহিদাপত্র না থাকা সত্ত্বেও মিথ্যাভাবে জাল-জালিয়াতি ও প্রতারণার আশ্রয়, অপরাধজনক বিশ্বাসভঙ্গ করে দরপত্র আহ্বান, দরপত্র সংগ্রহ, দরপত্র মূল্যায়ন ও কার্যাদেশ প্রদান করে পৃথক তিনটি মিথ্যা বিলের বিপরীতে মোট (সাত কোটি ৮১ লাখ ৭১ হাজার ৮৭৮ টাকা, ৪ কোটি ৪৯ লাখ ৯৫ হাজার ৫০ টাকা ও ৪ কোটি ২৯ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯৯ টাকা) ১৬ কোটি ৬১ লাখ ৩১ হাজার ৮২৭ টাকা উত্তোলনপূর্বক আত্মসাৎ করেন।

দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন বাদী হয়ে দণ্ডবিধি ৪০৯/৪২০/৪৬৭/ ৪৬৮/৪৭১/১০৯ এবং ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় মঙ্গলবার খুলনা মামলাটি দায়ের করেন। মামলা নং-০২।

আপনার মন্তব্য লিখুন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :