আজ বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯, ০২:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
«» “একজন স্বেচ্ছাসেবী,নিয়মিত রক্তদাতা সাদিয়া ক্যান্সারে আক্রান্ত, আর্থিক ভাবে সকলেই এগিয়ে আসুন”  «» ইউনানী/হোমিওপ্যাথিক ডাক্তার-ফার্মাসিস্ট সহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে বিশাল নিয়োগ «» ঢামেকে ব্রাদার ও মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের সংঘর্ষে আহত ২৫ «» আগামী সাতদিন খুবই চ্যালেঞ্জিং : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর «» বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থোপেডিক হাসপাতাল নিটোরের গল্প «» শুকরের চর্বিতে উৎপাদিত তেলে আক্রান্ত হচ্ছে আমাদের হৃদপিণ্ড! «» প্রাকৃতিক উপায়ে এডিস মশা থেকে মুক্তির উপায় «» ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত নতুন রোগী প্রায় ২ হাজার «» স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরেই হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী «» এবার ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসক লাঞ্ছিত

এই বালকের কিডনির অবস্থান পায়ে

সাধারনত কিডনির অবস্থান পেটের ভেতরেই হয়। কিন্তু ব্রিটেনের দশ বছর বয়সী বালক হামিশ রবিনসনের কিডনির অবস্থান তার পায়ে। অদ্ভুত মনে হলেও বাস্তবে এমনই ঘটেছে বিরল এক রোগের কারণে। জিনগত সমস্যাই এই রোগের কারণ বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

চিকিৎসকরা জানান, হামিশই হয়তো একমাত্র মানুষ যার দেহে একটি নির্দিষ্ট ক্রোমোজোম নেই। ‘সেভেন পি টু টু’ (7p22.1) নামের ক্রোমোজোমের অভাবে সৃষ্ট এই বিরল রোগটিকে তারা অভিহিত করেছেন ‘হামিশ সিনড্রোম’ নামে। এই রোগে শরীরের কোনও গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ যথাস্থানে না থেকে অন্য জায়গায় অবস্থান করতে পারে।

হামিশের ক্ষেত্রে তার শরীরে কিডনির অবস্থান ডান পাশের থাইয়ের উপরের দিকে। এর আগে কখনও এমন রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়নি বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, হামিশ নির্দিষ্ট সময়ের প্রায় ৬ সপ্তাহ আগেই ভূমিষ্ঠ হয়েছিল।জন্মের সময় তার ওজন ছিল মাত্র ৯০০ গ্রাম।

শিশুটির মা জানান, কথা বলতেও তার সমস্যা হয় হামিশের। ১৭ মাস বয়সে প্রথমবারের মতো ‘মাম্মি’ শব্দটি উচ্চারণ করেছিল সে। এরপর তার মুখ থেকে দ্বিতীয় শব্দ শুনতে আরও অন্তত ছয় বছর অপেক্ষা করতে হয়েছিল।

তবে শারীরিক প্রতিবন্ধকতা দমাতে পারেনি হামিশকে। নিয়মিত স্কুলে যায় সে। শিখছে কারাতেও।

আপনার মন্তব্য লিখুন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :