আজ বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
«» “একজন স্বেচ্ছাসেবী,নিয়মিত রক্তদাতা সাদিয়া ক্যান্সারে আক্রান্ত, আর্থিক ভাবে সকলেই এগিয়ে আসুন”  «» ইউনানী/হোমিওপ্যাথিক ডাক্তার-ফার্মাসিস্ট সহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে বিশাল নিয়োগ «» ঢামেকে ব্রাদার ও মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের সংঘর্ষে আহত ২৫ «» আগামী সাতদিন খুবই চ্যালেঞ্জিং : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর «» বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থোপেডিক হাসপাতাল নিটোরের গল্প «» শুকরের চর্বিতে উৎপাদিত তেলে আক্রান্ত হচ্ছে আমাদের হৃদপিণ্ড! «» প্রাকৃতিক উপায়ে এডিস মশা থেকে মুক্তির উপায় «» ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত নতুন রোগী প্রায় ২ হাজার «» স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরেই হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী «» এবার ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসক লাঞ্ছিত

ডেঙ্গু প্রতিরোধে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে সচেতনতা মূলক র‌্যালি ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান

শনিবার (৩ আগস্ট,২০১৯) গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্যোগে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতা মূলক র‌্যালি ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালিটি গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রধান ফটক থেকে শুরু হয়ে নবীনগর স্মৃতিসৌধ গেইট পর্যন্ত গিয়ে গণস্বাস্থ্যে ফেরত আসে।

এ সময় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সিইও ডাঃ মনজুর কদির আহমেদ, কেন্দ্রীয় কাউন্সিলের সভাপতি শেখ মোহাম্মদ কবির সহ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সকল কর্মকর্তা ও কর্মীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রাস্তার দুই পাশে পড়ে থাকা ডাবের খোসা, পলিথিন ইত্যাদি ময়লা পাটের বস্তায় ভরে দূরবর্তী স্থানে ফেলতে নিয়ে যেতে দেখা যায় এবং মাইকে সকলকে ঘর বাড়ির আঙ্গিনা পরিষ্কার রাখার আহ্বান জানানো হয়।

ডেঙ্গু প্রতিরোধে সবাইকে যার যার অবস্থানে থেকে সক্রিয় হওয়ার এবং মশার বংশ বিস্তার রোধে বাড়ি, কর্মস্থল ও আশপাশের এলাকা পরিষ্কার রাখার আহ্বান জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্যের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার (সিইও) ডাঃ মনজুর কদির আহমেদ।
তিনি বলেন, “এডিস মশা বেশিরভাগ সময় পায়ের দিকে কামড়ায়। সে কারণে পা ঢেকে রাখতে হবে, ঘুমানোর সময় মশারি টাঙিয়ে ঘুমাতে হবে।”

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী ২৪ ঘন্টায় দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ১ হাজার ৬৮৭ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন, বর্তমানে চিকিৎসাধীন ৬ হাজার ৫৮২ জন। ১লা জানুয়ারি থেকে ০২ আগস্ট পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ২১ হাজার ২৩৫ জন যা বিগত ১৮ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ।

মেডিসিন বিভাগের ইনচার্জ আসমা তৈমুজ বলেন, ডেঙ্গু একটি ভাইরাসজনিত জ্বর। যা এডিস মশার মাধ্যমে ছড়ায়। সাধারণ চিকিৎসাতেই ডেঙ্গু সেরে যায়, তবে হেমোরেজিক ডেঙ্গু জ্বর মারাত্বক হতে পারে। এডিস মশার বংশ বৃদ্ধি রোধের মাধ্যমে ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধ করা যায়। এ ব্যাপারে প্রত্যেককে সচেতন থাকতে হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :