আজ বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ০৬:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

Notice: Undefined variable: bnews_options in /home1/medinewsbd/public_html/wp-content/themes/Medinews Theme/header.php on line 146

Notice: Undefined variable: bnews_options in /home1/medinewsbd/public_html/wp-content/themes/Medinews Theme/header.php on line 146

Notice: Undefined variable: bnews_options in /home1/medinewsbd/public_html/wp-content/themes/Medinews Theme/header.php on line 146
«» ট্রাফিক আইন কার্যকর করতে বদলগাছী থানা পুলিশের লিফলেট বিতরণ «» চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখায় মাদক নির্মূল কমিটি গঠন «» উৎসর্গ ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে বরগুনায় শুকনো খাবার বিতরণ !!  «» বরিশাল ‘আই এইচ টি’তে জেলহত্যা দিবসে অধ্যক্ষের উপস্থিতিতে ডিজে পার্টি! «» ভারতের চেয়ে আমাদের স্বাস্থ্যখাত বেশি উন্নত: স্বাস্থ্যমন্ত্রী «» বিনা মূল্যের ওষুধ বিক্রি, ফার্মেসি মালিককে জরিমানা «» মাতৃমৃত্যু কমাতে হলে সিজারের সংখ্যাও কমাতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী «» মাতৃস্বাস্থ্যে বিশেষ অবদানস্বরূপ ৩ মেডিকেল কলেজকে বিশেষ সম্মাননা «» কিংবদন্তি চিকিৎসক এম আর খানের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ «» স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে হবে আলাদা মেডিকেল ইউনিট

প্রাকৃতিক উপায়ে এডিস মশা থেকে মুক্তির উপায়

এডিস মশা জমে থাকা অতি অল্প পানিতে বাসা বাঁধে, ডিম পাড়ে এবং বংশ বিস্তার করে। সে হিসেবে বলা যায়, ঘরের অ্যাকুরিয়াম, ফুলের টব, ছাদে গাছের টব, এসি’র পানি, ফ্রীজের নীচে জমা পানি, ছোট পাত্রে জমা পানি খুবই উপযোগী এডিস মশার বংশ বিস্তারে। তাছাড়া ঘরের পাশের ছোট নালাতে সে বাসা বাঁধে।

এডিস মশার ডিম ফুটে যে বাচ্চা এডিস বের হয় তার নাম লার্ভা। এসব লার্ভা পাত্রের পানিতে চ্যাংদোলা বা ল্যাজদোলা হয়ে ঝুলে থাকে। তাদের লেজ থাকে উপরে, মাথা থাকে নীচে। লেজের উপরে থাকে ছিদ্র এবং ছিদ্র দিয়ে পানির উপরিতল থেকে সে শ্বাস প্রশ্বাস নেয়। সুতরাং ভালো হলো এসব জমে থাকা পানি ফেলে দেয়া এবং পুনরায় এসব স্থানে জমতে না দেয়া।

আর যদি তা সম্ভব না হয় তবে ইনসেক্টিসাইড স্প্রে করা। তবে গৃহস্থালির কিছু উপায় আছে যার মাধ্যমে লার্ভাকে সাময়িক ধ্বংস করা যায়।

অয়েল: তৈল পানির চেয়ে হালকা। তাই সামান্য তেল পানিতে ছেড়ে দিলে তা পানির উপর একটা পাতলা আবরণ তৈরি করে ফলে লার্ভা শ্বাসপ্রশ্বাস বন্ধ হয়ে মারা পাড়ে। অলিভ ওয়েল, ভেজিটেবল ওয়েল, নিমের তৈল, ইউক্যালিপটাস তৈল এতে উপকারী।

ভিনেগার: পরিমিত মাত্রার ভিনেগার সলিউশন এডিস মশার লার্ভাকে ধ্বংস করে। মাত্রা হবে ৮৫ ভাগ পানি ও ১৫ ভাগ ভিনেগার।

লিক্যুইড সোপ: বাসন ধোবার লিক্যুইড সোপ অল্প পরিমানে জমে থাকা পানিতে ছেড়ে দিলে লার্ভা মরে যায়।

ব্লিচিং পাউডার: ব্লিচিং পাউডার যদিও স্বাস্থ্যের জন্যে ঝুঁকিপূর্ণ তবে এক চামচ ব্লিচিং পাউডার এক গ্যালন পানিকে এডিস লার্ভা মুক্ত রাখতে পারে।

কেরোসিন তৈল: পূর্বে সচেতন গ্রামের মানুষ বাসা বাড়ির আঙিনায় বা আশেপাশে নালা নর্দমার মশা-মাছি, কিট-পতঙ্গ, সাপ-বিচ্ছি তাড়াতে কেরোসিন ছিটিয়ে দিতেন। তবে সেটাও স্বাস্থ্য সম্মত নয়।

মাছের চাষ: কিছু মাছ আছে যাদের খাদ্য মশার লার্ভা। যেমন- কই মাছ। সুতরাং আশে পাশে পুকুর ডোবা, নালার মশা মাছি ধ্বংস করতে কই মাছ ছেড়ে দেয়া যায়।

তবে প্রাকৃতিক এসব উপায় কয়েকটি পরিবেশ বান্ধব হলেও দীর্ঘমেয়াদী হিসেবে খুব একটা কার্যকর নয়।

কিছু কিছু রোগ আছে যাদের বেলায় প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ উত্তম। ডেঙ্গু সেরকম একটি রোগ। অসচেতনতায় যেকোন রোগই ভয়াবহ পরিণতি ডেকে আনে। ডেঙ্গু যেহেতু মশার মাধ্যমেই ছড়ায় আর সে মশা সাধারণত ঘরেই থাকে, তাই নিজের ঘর দোয়ার নিজেকেই পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে।

ডেঙ্গু ভাইরাস বাহক এডিস মশা দিনে কামড়ায়। তাই লম্বা ডিলে ঢালা পোশাক, মশারী ব্যবহার, স্বাস্থ্য সম্মত মশার কয়েল, স্প্রে ব্যবহার করুন। ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত রোগীকে যাতে মশা কামড় দিতে না পারে সেজন্যে রোগী এবং নিজে উভয়েই মশারি ব্যবহার করা। কারণ, ডেঙ্গু জ্বরের রোগীকে মশা কামড়িয়ে প্রথমে মশা ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়, পরে সে সুস্থ মানুষকে কামড়িয়ে তার লালার মাধ্যমে ডেঙ্গু ভাইরাস ছড়ায়।

আপনার মন্তব্য লিখুন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :