আজ বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:০১ অপরাহ্ন

বুকের হাড় না কেটে আরও একটি সফল বাইপাস সার্জারি

সরকারি হাসপাতালে প্রচলিত ওপেন হার্ট সার্জারির পরিবর্তে বুকের হাড় না কেটেই হার্টে আরও একটি সফল বাইপাস সার্জারি করেছেন একদল বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক। মো. মতিন নামে এক রোগীর হার্টে থাকা দুইটি ব্লকের চিকিৎসায় ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ (এনআইসিভিডি) হাসপাতালে মিনিমাল ইনভেসিভ কার্ডিয়াক সার্জারির (এমআইসিএস) মাধ্যমে এ বাইপাস সার্জারি করা হয়।

দ্বিতীয়বারের মতো সফল এ অস্ত্রোপচারে খরচ হয়েছে মাত্র পাঁচ হাজার টাকা। প্রথম অস্ত্রোপচারটি হয়েছিল গত ২৫ আগস্ট। একই পদ্ধতিতে ওপেন হার্ট সার্জারির পরিবর্তে বুকের পাঁজরের হাড় না কেটে ১২ বছরের নূপুরের হৃদযন্ত্রে থাকা জন্মগত ছিদ্রের চিকিৎসায় সার্জারিতে অংশ নেওয়া চিকিৎসকরাই এই সার্জারিতে অংশ নেন।

জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের (এনআইসিভিডি) চিকিৎসক আশরাফুল হক সিয়ামের নেতৃত্বে সম্পন্ন হয় দুটি অস্ত্রোপচার। এই পদ্ধতিতে অস্ত্রোপচারকে বলা হয় মিনিমাল ইনভ্যাসিভ কার্ডিয়াক সার্জারি (এমআইসিএস)।

শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) ডা. আশরাফুল হক সিয়াম জানান, এই পদ্ধতিতে দ্বিতীয় অস্ত্রোপচারটি হয় গত ২ সেপ্টেম্বর। সকাল সাড়ে নয়টায় শুরু হয়ে প্রায় চার ঘণ্টা ধরে চলা অস্ত্রোপচারটি। অস্ত্রোপচার দলে ডা. সিয়ামের সঙ্গে ছিলেন ডা. আসিফ, ডা. রুমু, ডা. শাহরিয়ার, ডা. ওয়াহিদা, ডা. মনজুর, ডা. মইনুল ও ডা. আহসানারা। পারফিউশনে ছিলেন ডা. রুবাইয়াত। এনেস্থেশিয়ায় ছিলেন ডা. আজাদ ও ডা. রাজু।

ডা. সিয়াম বলেন, অপারেশনের পর রোগী ভালো আছেন। হাঁটতে ও চলাফেরা করতে পারছেন। অপারেশনের তিন দিনের মাথায় রোগী বাসায় চলে যাওয়ার উপযোগী ছিলেন। তবে বাড়তি সর্তকতা হিসেবে হাসপাতালে ছিলেন তিনি। শনিবার (০৭ সেপ্টেম্বর) সকালে মো. মতিন হাসপাতাল থেকে রিলিজ নিয়ে বাসায় যাবেন।

এর আগে, এই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দল ২৫ আগস্ট (রবিবার) ওপেন হার্ট সার্জারির পরিবর্তে বুকের হাড় না কেটে হার্টে (হৃদযন্ত্র) অপারেশন করা হয়েছিল ১২ বছরের শিশু নূপুরের। দেশের কোনো সরকারি হাসপাতালে প্রথমবারের মত ওই সফল অস্ত্রোপচারের পর মাত্র চারদিনের মাথায় হাসিমুখে বাসায় ফেরে নূপুর।

আপনার মন্তব্য লিখুন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :