আজ মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন

স্পার্ম ডোনারের অনুমতি ছাড়া ১৭ সন্তান, হাসপাতালের বিরুদ্ধে মামলা

অনুমতি ছাড়া ১৭ জন সন্তান জন্মের ঘটনায় হাসপাতালের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের এক স্পার্ম ডোনার। স্ত্রীকে পাশে বসিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি অভিযোগ করেছেন, চুক্তি ভঙ্গ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছে।

সূত্রে জানা গেছে, ডা. ব্রাইসি ক্লেরি অভিযোগ করেছেন ওরিজন হেলথ অ্যান্ড সায়েন্স ইউনিভার্সিটির বিরুদ্ধে। চুক্তি ভঙ্গের জন্য ওই হাসপাতালের বিরুদ্ধে তিনি পাঁচ দশমিক ২৫ মিলিয়ন ডলার ক্ষতি চেয়ে মামলা করেছেন।

দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, ৫৩ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির তিন সন্তান রয়েছে। তার মধ্যে একজনকে তারা দত্তক নিয়েছেন। তিনি বলেন, ৩০ বছর আগে স্পার্ম দিয়েছেন। ওই সময় তিনি জানিয়েছেন, সেই স্পার্ম থেকে সন্তান জন্ম দিতে গেলে তাকে জানাতে হবে।

ডা. ব্রাইসি ক্লেরি অভিযোগ করেছেন, এ ধরনের চুক্তি ভঙ্গ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছে। তিনি বলেছেন, তার স্পার্ম থেকে জন্ম নেওয়া দুই শিশু তার স্ত্রীর গর্ভের সন্তানের সঙ্গে একই স্কুলে পড়ে।

এ ধরনের কাজের ফলে ঝুঁকিতে পড়ে গেছেন জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আমি চেয়েছিলাম, যারা সন্তান নিতে পারছে না, সে ধরনের কিছু মানুষকে সহায়তা করার। তবে তারা অন্য এলাকার মানুষ হবে। কিন্তু চুক্তি ভঙ্গ করার জন্য হাসপাতাল দায়ী। তাদের এসব ব্যাপারে সচেতন হওয়া দরকার।’

তিনি আরো বলেন, ‘তারা প্রতিশ্রুতি না দিলে আমি কখনোই এ ধরনের স্পার্ম ডোনেট করতাম না। সেই প্রতিশ্রুতি মিথ্যা ছিল জেনে আমি খুব কষ্ট পেয়েছি। একই এলাকায় আমার স্ত্রীর গর্ভের সন্তানদের ডজন ডজন ভাই থাকাটা সত্যিই তাদের জন্যও বিব্রতকর।’

ডিএনএ পরীক্ষা করে দেখা গেছে, আরো ১৭ সন্তান তার। তিনি বলেন, ‘নৈতিক, আইনি, ব্যক্তিগত দায়বদ্ধতা কাটিয়ে ওঠার পরেও গভীরভাবে ব্যথিত হয়ে পড়েছি। এখন সেই ১৭ শিশুর প্রতিও এক ধরনের কষ্ট লাগছে।’

তবে হাসপাতালের মুখপাত্র বলেছেন, ‘এটা সম্পূর্ণ ভুল বোঝাবুঝি। আমাদের রোগীর গোপনীয়তার ব্যাপারে আমাদের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তাদের স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্যের গোপনীয়তা আমরা রক্ষা করি। সে কারণে গোপনীয়তা বজায় রাখার স্বার্থে এ ধরনের বিষয়ে মন্তব্য করতে পারি না।

আপনার মন্তব্য লিখুন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :