,
শিরোনাম :
«» এ্যালাইড হেলথ্ প্রফেশনাল শিক্ষা বোর্ডের বিরুদ্ধে ডিমান্ড অব জাস্টিস নোটিশ প্রেরণ «» আইএইচটি এবং ম্যাটস বোর্ড নিয়ে বিতর্ক! «» বেশীরভাগ ফার্মেসীতেই বিক্রি হচ্ছে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ «» গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন «» জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিজিওথেরাপি শাখার আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত «» ভুটানে বাংলাদেশি চিকিৎসক নিয়োগ : সমঝোতা স্মারক নবায়ন এপ্রিলে «» তুরস্কে ইউরোপের সর্ববৃহৎ হাসপাতাল, যা আছে তাতে «» প্রাইভেট প্রাকটিস : প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ পরিবর্তনে আশাবাদী চিকিৎসকরা «» স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ব্যাপক রদবদল

অনলাইনে কেনাকাটা কেন করবেন?

এইতো কিছুদিন আগে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছে বাংলাদেশ। তৈরি হচ্ছে নতুন নতুন সম্ভাবনা ও সুযোগ। সেই সাথে মানুষের বেড়েছে ব্যস্ততা, রাস্তায় জ্যাম, মার্কেটে ভিড়। প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনার জন্য মার্কেটে যাওয়ার সময়ই থাকেনা অনেকের।

তাই এখন বেশির ভাগ মানুষ কেনা কাটার জন্য বেছে নেয় অনলাইনকে। ঘরে বসে কেনাকাটা হয়ে যায় আর সময়টুকু বাইরে না দৌড়িয়ে ঘরে বসে একটু আরামও করা যায়। হাজারটা প্রোডাক্টের ভিড়ে বেছে নেয়া যায় নিজের দরকারি, প্রয়োজনীয় ও পছন্দসই জিনিস।

সাবধানতা

কিন্তু অনলাইনে কেনাকাটা করতে গিয়ে অনেকেই নানা রকম হয়রানির শিকার হয়েছেন এমন অভিযোগও আছে। টাকা দিয়েও প্রোডাক্ট পাওয়া যায় না, আবার নকল প্রোডাক্ট দেয়া, জিনিস খারাপ দেয়া, খারাপ হলে ফেরত না নেয়া ইত্যাদি নানা ধরণের অভিযোগ পাওয়া যায়। কারণ তারা কিছু কিছু না জেনে কেনাকাটা করেছেন। আবার কেনাকাটা করে অনেকের অভিজ্ঞতাই খুব ভালো। তারা আবার ভালো ফিডব্যাকও দিচ্ছেন। তাদের বন্ধু বান্ধবদেরও উৎসাহিত করছেন ওই পেইজ থেকে জিনিস কিনতে। তাই কোথা থেকে জিনিস কিনবেন? কাদের কাছ থেকে জিনিস কিনবেন? সেটা নিয়ে অনেকেই বিভ্রান্ত থাকেন। তাই তাদের জন্য রয়েছে কিছু উপদেশ।

কিছু উপদেশ:

একজন Online Business Owner হিসেবে কিছু কথা বলা খুব জরুরি। যদিও মানুষের শেখার কোন শেষ নাই। তবুও এই স্বল্প অভিজ্ঞতা নিয়ে আপনাদের সামনে ফাড়াকটা তুলে ধরার চেষ্টা করছি। তাহলে আপনারা ভালো মন্দের তফাতটা ধরতে পারবেন। বিপদ কম হবে, হয়রানিতে কম পড়বেন।

অনেকেই কম দাম দেখলে কোনো কিছু না ভেবে ঝাঁপিয়ে পড়েন কিনতে। বাপরে বাপ দাম এতো কম!! হুমড়ি খেয়ে পড়েন কেনার জন্য। আর অন্য অনলাইন যারা বেশি দামে প্রোডাক্ট বিক্রি করছে তাদের চৌদ্দ গোষ্টি উদ্ধার করেন। তবে যাচাই করে দেখেন না কম দামে পাচ্ছি এটা কি আসলেই ভালো না খারাপ। কম দাম দেখলেই ঝাঁপিয়ে পড়বেন না।

যখনি কোনো কিছু কিনবেন তার আগে ভালো মতো চেক করে নিবেন পেইজ গ্রুপ কি জেনুইন না কি ফেইক। নয়তো টাকা নিয়ে ভাগবে জিনিস পাবেন না।

যেই প্রোডাক্ট অর্ডার করবেন যেই প্রোডাক্টের রিভিউ পরে নেবেন আগে। আগে যারা কিনেছে তারা আসল না নকল জিনিস পেয়েছে সহজেই বুঝতে পারবেন।

যেখান থেকে অর্ডার করবেন অবশ্যই সবার আগে দেখবেন সেই পেইজের Owner এর ব্যবহার কেমন। একজন ভদ্র, সৎ মানুষই একজন ভালো ব্যবসায়ী হতে পারে।

মনে করেন শীতের পোশাক অর্ডার করলেন অনলাইনে। কিন্তু জিনিস পেলেন ১ থেকে ২ মাস পরে। ততদিনে গরম চলে এসেছে। সেই জিনিস আপনার কোন কাজে লাগবে না। তাই কতদিনে প্রোডাক্ট হাতে পাবেন সেটা ভালো মতো জেনে নিন।

এডভান্সড নেয়ার কাজ ৮০% অনলাইন Owner রা করে। বিশেষ করে যারা প্রি অর্ডারে প্রোডাক্ট আনে বাংলাদেশে। এখন আপনি যখন এডভান্সড দিবেন তারা কি আদো জেনুইন না কি জানবেন কি করে? দরকার হলে বিভিন্ন GRoup পোষ্ট করে জিজ্ঞাসা করবেন এই পেইজে এডভান্সড করলে কোনো রিস্ক আছে কিনা। Sure হয়ে নিবেন। নয়তো টাকা জলে যাবে। টাকা দিবেন কিন্তু জিনিস পাবেন না।

কেনাকাটা করার সময় সবার উচিত এটা জিজ্ঞাসা করা Refund policy কি অথবা প্রোডাক্টে কোনো সমস্যা হলে তারা কি আপনাকে বেনিফিট দিবে ? অর্ডার করার পূর্বে অবশ্যই জিজ্ঞাসা করে নিবেন সেই নির্দিষ্ট অনলাইন পেইজে।

Page and GRoup pin Post থাকে যেখানে একজন Owner তার Business Ruless লিখে দিয়ে থাকে। যখন পেইজ অথবা GRoup check করবেন ভালো করে দেখে নিবেন সব কিছু ।

আমি এত কিছু এই জন্য বলছি কারণ আমি দেখছি অনলাইনে Fraud seller যেমন চারপাশে ভরে যাচ্ছে, তেমনি Buyer ও আছে। আজকের কথা গুলো তাদের জন্য যারা কিনা কিছু না জেনে অর্ডার করে সব জায়গায় ঠকে যান ।

আরও পড়ুন :  বসে পানি পানের বৈজ্ঞানিক ভিত্তি জানলে অবাক হবেন আপনিও! শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন

আমার মতো যারা অনলাইন Business Owner আছে তারা হাজার মানুষের সাথে কাজ করে। তাই তাদের মাথায় কোনো দিন কাউকে ঠকানোর চিন্তা মাথায় আসবে না। কারণ এটা তার ইমেজের বিষয়।

তাই অনলাইনে কেনাকাটা করার সময় সাবধানতা অবলম্বন করুন। এতে ঠকবেন না। আমার মতো যারা সৎ, পরিশ্রমি, উদ্যোমী তাদের কষ্ট ও পরিশ্রম সার্থক হবে। কারন Honest seller কখনোই তার Buyer কে ঠকায় না। কাস্টমারদের সাথে তাহলে আমাদের সম্পর্কও আরো মধুর হবে ।

লেখা : প্রেমা নাবী।

আরও পড়ুন :

সংবাদটি শেয়ার করুন :

Ad
Ad