আজ সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯, ০৯:৫৬ পূর্বাহ্ন,

স্বাস্থ্যখাতে ডিজিটাল ব্যবস্থার আধুনিকায়ন প্রয়োজন : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট : সার্বিক স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নের মধ্য দিয়ে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের লক্ষ্যে স্বাস্থ্যখাতে ডিজিটাল ব্যবস্থার আধুনিকায়ন করা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে তিনি একথা বলেন। চতুর্থ গ্লোবাল ডিজিটাল হেলথ পার্টনারশিপের মন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলনের সমাপনী অধিবেশনে তিনি বক্তব্য রাখেন। বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সবার জন্য সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা দুরূহ কাজ। এক্ষেত্রে অর্জিত সাফল্য ধরে রাখার চ্যালেঞ্জের পাশাপাশি অসম্পূর্ণ কর্মসূচি সফল করতে গিয়ে আমাদের নতুন নতুন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হতে হয়। যতই অপ্রত্যাশিত চ্যালেঞ্জ আসুক না কেন বাংলাদেশ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের লক্ষ্য থেকে বিচ্যুত হবে না’।

এলক্ষ্যে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহায়তা জোরদার করতে গ্লোবাল ডিজিটাল হেলথ পার্টনারশিপ এর সবার প্রচেষ্টার সঙ্গে দৃঢ় অবস্থানে থাকতে বাংলাদেশ অঙ্গীকারবদ্ধ বলে জানিয়েছেন জাহিদ মালেক।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘জনগণের দোরগোড়ায় মৌলিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করে একে টেকসই করার কাজে বাংলাদেশ যথেষ্ট অগ্রগতি অর্জন করেছে। এক্ষেত্রে নিজস্ব অভিজ্ঞতা এবং বৈশ্বিক অনুশীলনের সফল প্রয়োগ করেছে বাংলাদেশ সরকার। এলক্ষ্যে দেশব্যাপী একটি শক্তিশালী ও ভারসাম্যপূর্ণ নেটওয়ার্ক তৈরি করেছে বাংলাদেশ। এর মধ্য দিয়ে আমরা সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে সফল হয়েছি। এমডিজি অর্জনে সফল হয়েছি। দেশের সার্বিক স্বাস্থ্য মানের উন্নয়ন ঘটাতে পেরেছি। এমনকি বিভিন্ন জরুরি স্বাস্থ্য সমস্যা মোকাবিলায়ও বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত শতভাগ সফলতা পেয়েছে।’ এসময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী টিকাদান কর্মসূচি, কৃমিনাশক কার্যক্রম, শিশু ও মাতৃমৃত্যু হার হ্রাসে সাফল্য অর্জনের ক্ষেত্রে গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরেন।

আরও পড়ুন :  ভারতে নবজাতকের পা ভেঙে দিলো হাসপাতালের ওয়ার্ড বয়

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা এবং গ্লোবাল ডিজিটাল হেলথ পার্টনারশিপ এর সহায়তায় ভারতের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়  ডিজিটাল স্বাস্থ্য বিষয়ক এ বৈশ্বিক আন্তঃদেশীয় সম্মেলনের আয়োজন করে।

ভারতের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জগত প্রকাশ নাড্ডা, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী অনুপ্রিয়া প্যাটেল, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক ড. পুনম ক্ষেত্রপাল সিং অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন।

দুই দিনব্যাপী এই সম্মেলনে ৩৪ দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী, সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

মঙ্গলবার সমাপনী দিনে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে ডিজিটাল স্বাস্থ্য বিষয়ক দিল্লি সনদ গৃহীত হয়।

এই সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলে নেতৃত্ব দেন। প্রতিনিধি দলে ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুন :

আরও পড়ুন :

সংবাদটি শেয়ার করুন :