আজ শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

আইন পরিপন্থী পদায়ন, মানহীন পুনর্বাসন সেবা চালুর পথে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়

সরকারি বেসরকারি এবং বিদেশি সংস্থা সমুহের প্রচেস্টায় বাংলাদেশর মোট জনগোষ্ঠীর একটা বড় অংশ এখন ফিজিওথেরাপি সিকিৎসার আওতাধীনে এসেছে ৷ কয়েকটি সংস্থার গবেষনা তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশের শতকরা ১০ ভাগ প্রতিবন্ধী ব্যক্তি এবং ৬ ভাগ মানুষ প্রতিবন্ধিতার ঝুঁকিতে রয়েছেন ৷ হাড্ডি এবং মাংসপেশির দুর্বলতা কিংবা মেকানিক্যাল সমস্যা নিয়ে অনেকেই দীর্ঘদিন ব্যথায় ভুগছেন এবং আস্তে আস্তে কাজকর্ম এবং চলাফেরায় অক্ষম হয়ে যাচ্ছেন ৷ এসব রোগীদের জন্য ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা আবশ্যক ৷ এদের মধ্যে অনেকেই ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন পর্যাপ্ত তথ্যের অভাবে, ব্যায় বহনের অক্ষমতা এবং বসবাসরত এলাকায় ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার পর্যাপ্ত ব্যাবস্থা না থাকার কারনে ৷

যারা ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা পাচ্ছেন, তাদের একটা বড় অংশ আবার ভুল চিকিৎসার স্বিকার হচ্ছেন সরকারি অব্যবস্থাপনার কারনে ৷ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) এবং ফিজিওথেরাপি পেশা নিয়ন্ত্রনকারী বিশ্ব সংস্থা (WCPT) এর নির্দেশনা অনুসারে কোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কমপক্ষে স্নাতক ডিগ্রীধারীরাই ফিজিওথেরাপিস্ট হিসেবে বিবেচিত হবেন ৷

বাংলাদেশ রিহ্যাবিলিটেশন কাউন্সিল আইন, ২০১৮ (বাংলাদেশ গেজেটে ১৪ নবেম্বর, ২০১৮) অনুসারেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং অন্যান্য স্বীকৃত বিশ্বিদ্যালয় থেকে পাশকৃত ব্যাচেলর ডিগ্রিধারীরাই ফিজিওথেরাপিস্ট ৷ ডিপ্লোমা ডিগ্রীধারীরা মেডিকেল টেকনোলজিস্ট যারা ফিজিওথেরাপিস্ট এর পরামর্শ অনুসারে এবং তাঁর অধীনে কিংবা সরাসরি তত্বাবধায়নে থেরাপি সেশন পরিচালনা করতে পারবে ৷

কিন্তু সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে দেখা যায়, মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ফিজিওথেরাপি) দেরকে “সিনিয়র ফিজিওথেরাপিস্ট” এবং সিনিয়র মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ফিজিওথেরাপি) দেরকে “চীপ ফিজিওথেরাপিস্ট” পোষ্টে পদন্নোতির জন্য আবেদনপত্র আহ্বান করা হয়েছে ৷ যা আইনের পরিপন্থী এবং ফিজিওথেরাপি সেবাগ্রহীতাদের জন্য ঝুকিপূর্ণ ৷ একই সাথে এটি আইন অমান্য করে ফিজিওথেরাপিস্ট (ব্যাচেলর ডিগ্রিধারী) দেরকে নিয়োগ বঞ্চিত করে মানহীন সেবা চালু করা ৷

বাংলাদেশ রিহ্যাবিলিটেশন কাউন্সিল আইন, ২০১৮ যেহেতু প্রনয়ন হয়েছে অবকাঠামো এবং অন্যান্য সক্ষমতা অর্জন করে দ্রুতই এই পুনর্বাসন সেবা ক্ষেত্রে সরকার আইনের প্রয়োগ করবে বলে আশা করি ৷ তবে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (BSMMU) এর মত একটা প্রতিষ্ঠানে এমন আইন অমান্য করে অযোগ্য আইন পরিপন্থী পদায়ন, মানহীন পুনর্বাসন সেবা চালুর পথে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ৷

সরকারি বেসরকারি এবং বিদেশি সংস্থা সমুহের প্রচেস্টায় বাংলাদেশর মোট জনগোষ্ঠীর একটা বড় অংশ এখন ফিজিওথেরাপি সিকিৎসার আওতাধীনে এসেছে ৷ কয়েকটি সংস্থার গবেষনা তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশের শতকরা ১০ ভাগ প্রতিবন্ধী ব্যাক্তি এবং ৬ ভাগ মানুষ প্রতিবন্ধিতার ঝুকিতে রয়েছেন ৷ হাড্ডি এবং মাংসপেশির দুর্বলতা কিংবা মেকানিক্যাল সমস্যা নিয়ে অনেকেই দীর্ঘদিন ব্যাথায় ভুগছেন এবং আস্তে আস্তে কাজকর্ম এবং চলাফেরায় অক্ষম হয়ে যাচ্ছেন ৷ এসব রোগীদের জন্য ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা আবশ্যক ৷ এদের মধ্যে অনেকেই ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন পর্যাপ্ত তথ্যের অভাবে, ব্যায় বহনের অক্ষমতা এবং বসবাসরত এলাকায় ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার পর্যাপ্ত ব্যাবস্থা না থাকার কারনে ৷

আরও পড়ুন :  বকেয়া না মেটানোয় আটকে শিশুর দেহ

যারা ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা পাচ্ছেন, তাদের একটা বড় অংশ আবার ভুল চিকিৎসার স্বিকার হচ্ছেন সরকারি অব্যবস্থাপনার কারনে ৷ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) এবং ফিজিওথেরাপি পেশা নিয়ন্ত্রনকারী বিশ্ব সংস্থা (WCPT) এর নির্দেশনা অনুসারে কোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কমপক্ষে স্নাতক ডিগ্রীধারীরাই ফিজিওথেরাপিস্ট হিসেবে বিবেচিত হবেন ৷

বাংলাদেশ রিহ্যাবিলিটেশন কাউন্সিল আইন, ২০১৮ (বাংলাদেশ গেজেটে ১৪ নভেম্বর, ২০১৮) অনুসারেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং অন্যান্য স্বীকৃত বিশ্বিদ্যালয় থেকে পাশকৃত ব্যাচেলর ডিগ্রিধারীরাই ফিজিওথেরাপিস্ট ৷ ডিপ্লোমা ডিগ্রীধারীরা মেডিকেল টেকনোলজিস্ট যারা ফিজিওথেরাপিস্ট এর পরামর্শ অনুসারে এবং তাঁর অধীনে কিংবা সরাসরি তত্বাবধায়নে থেরাপি সেশন পরিচালনা করতে পারবে ৷

কিন্তু সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে দেখা যায়, মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ফিজিওথেরাপি) দেরকে “সিনিয়র ফিজিওথেরাপিস্ট” এবং সিনিয়র মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ফিজিওথেরাপি) দেরকে “চীপ ফিজিওথেরাপিস্ট” পোষ্টে পদন্নোতির জন্য আবেদনপত্র আহ্বান করা হয়েছে ৷ যা আইনের পরিপন্থী এবং ফিজিওথেরাপি সেবাগ্রহীতাদের জন্য ঝুকিপূর্ণ ৷ একই সাথে এটি আইন অমান্য করে ফিজিওথেরাপিস্ট (ব্যাচেলর ডিগ্রিধারী) দেরকে নিয়োগ বঞ্চিত করে মানহীন সেবা চালু করা ৷

বাংলাদেশ রিহ্যাবিলিটেশন কাউন্সিল আইন, ২০১৮ যেহেতু প্রনয়ন হয়েছে অবকাঠামো এবং অন্যান্য সক্ষমতা অর্জন করে দ্রুতই এই পুনর্বাসন সেবা ক্ষেত্রে সরকার আইনের প্রয়োগ করবে বলে আশা করি ৷ তবে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (BSMMU) এর মত একটা প্রতিষ্ঠানে এমন আইন অমান্য করে অযোগ্য লোকদেরকে ফিজিওথেরাপিস্ট হিসেবে পদায়িত করে পুনর্বাসন সেবাখাতকে দুর্বল এবং ঝুঁকিপূর্ণ করাটা নিশ্চয়ই রোগী এবং সাধারণ জনগনের কাছে নিন্দনীয় ৷ ফিজিওথেরাপিস্ট হিসেবে পদায়িত করে পুনর্বাসন সেবাখাতকে দুর্বল এবং ঝুকিপূর্ণ করাটা নিশ্চয়ই রোগী এবং সাধারণ জনগনের কাছে নিন্দনীয় ৷

ডাঃ শেখ মুমিনুল্লাহ, পিটি
physio.mumin@gmail.com

আপনার মন্তব্য লিখুন :

আরও পড়ুন :

সংবাদটি শেয়ার করুন :