আজ বৃহস্পতিবার, ২০ Jun ২০১৯, ০৭:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
«» ” উৎসর্গ ফাউন্ডেশন, শ্যামলী ম্যাটস শাখার পক্ষ থেকে আর্থিক সহযোগিতা “ «» “উৎসর্গ ফাউন্ডেশ, বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবী মিলনমেলা রেজিস্ট্রেশনের শেষ তারিখ ৩০শে জুন “ «» ব্যথানাশক ঔষুধ ছাড়াই বিকল্প ম্যাজিক পেইন কিলার! «» বাংলাদেশের বাজারে মেয়াদোত্তীর্ণ সব ওষুধ এক মাসের মধ্যে ধ্বংস করার আদেশ দিয়েছে আদালত «» নিজের চেম্বার নেই : রকে বসে প্রতিদিন শত রোগী দেখেন গরীবের ডাক্তার «» আমি এসেছি বাংলাদেশ থেকে বিদেশে রোগী যাওয়া বন্ধ করতে : ডা. দেবী শেঠী «» চিকিৎসকদের সুরক্ষায় কড়া আইন করছে ভারত : হাসপাতালে বিশেষ নিরাপত্তাবলয় «» রেশম দিয়ে কৃত্রিম ধমনি : যুগান্তকারী আবিষ্কার বাঙালি চিকিৎসক-গবেষকদের «» নিজের টাকায় শিশুদের জীবন দান করা ডা. কফিল খান বকেয়া বেতনও পাচ্ছেন না «» ডাক্তারদের আত্মরক্ষা আন্দোলনের জেরে হাসপাতালগুলো এবার পুলিশি সুরক্ষা পেল

ঢাকা মেডিকেল ও সাতক্ষীরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুদকের অভিযান

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও সাতক্ষীরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অভিযান পরিচালনা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বিভিন্ন পরীক্ষা করার সময় অতিরিক্ত অর্থ দিতে হয়—এমন অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়।

অভিযান পরিচালনাকালে দুদক প্রধান কার্যালয়ের একটি এনফোর্সমেন্ট দেখতে পায়, এক্স-রে করার ক্ষেত্রে রসিদ ছাড়া অতিরিক্ত অর্থ নেয়া হয়। এছাড়া এমআরআই এবং সিটি স্ক্যান করার ক্ষেত্রে রসিদ ছাড়াই টাকা নেয়া হয়।

হাসপাতালে কর্মরত আনসার সদস্যরা এ অনিয়মে জড়িত মর্মে দুদক টিমের প্রাথমিক অনুসন্ধানে উঠে আসে।

অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন  বলেন, “তাদের কাছে একটি অভিযোগ গেছে—রেডিওলজিতে পরীক্ষার নির্ধারিত ফির চেয়ে বেশি টাকা নেয়। টাকার বিনিময়ে কাউকে আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষার সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে। তারা সেখানে গিয়ে বিষয়টির প্রমাণ পেয়েছে।”

“অভিযুক্ত আনসার সদস্যদের অবিলম্বে বদলি করা হবে। এছাড়া যেসব ওষুধের মূল্য তালিকা নেই সেগুলো অবিলম্বে জানানো হবে”, যোগ করেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক।

এ কে এম নাসির উদ্দিন বলেন, “এই বিভাগে সরকারের নিয়োগ করা কোনো লোকবল নেই। একপক্ষের মামলার জন্য এখানে নিয়োগ বন্ধ আছে। অতবড় একটি হাসপাতাল চতুর্থ শ্রেণীর লোক ছাড়াই চলছে। লোক নিয়োগ দিলেই এখানে শৃঙ্খলা ফিরে আসবে।”

অন্যদিকে নানা অনিয়মের অভিযোগে সাতক্ষীরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অভিযান পরিচালনা করে দুদক। দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় খুলনা থেকে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ওষুধের তালিকা ও হাসপাতালে ইনভেন্টরি ওষুধ মিলিয়ে দেখে তারা। এ বিষয়ে তথ্যাবলি সংগ্রহ করে দুদক টিম তাদের পর্যবেক্ষণ কমিশনে উপস্থাপন করবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :