আজ বৃহস্পতিবার, ২০ Jun ২০১৯, ০৭:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
«» ” উৎসর্গ ফাউন্ডেশন, শ্যামলী ম্যাটস শাখার পক্ষ থেকে আর্থিক সহযোগিতা “ «» “উৎসর্গ ফাউন্ডেশ, বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবী মিলনমেলা রেজিস্ট্রেশনের শেষ তারিখ ৩০শে জুন “ «» ব্যথানাশক ঔষুধ ছাড়াই বিকল্প ম্যাজিক পেইন কিলার! «» বাংলাদেশের বাজারে মেয়াদোত্তীর্ণ সব ওষুধ এক মাসের মধ্যে ধ্বংস করার আদেশ দিয়েছে আদালত «» নিজের চেম্বার নেই : রকে বসে প্রতিদিন শত রোগী দেখেন গরীবের ডাক্তার «» আমি এসেছি বাংলাদেশ থেকে বিদেশে রোগী যাওয়া বন্ধ করতে : ডা. দেবী শেঠী «» চিকিৎসকদের সুরক্ষায় কড়া আইন করছে ভারত : হাসপাতালে বিশেষ নিরাপত্তাবলয় «» রেশম দিয়ে কৃত্রিম ধমনি : যুগান্তকারী আবিষ্কার বাঙালি চিকিৎসক-গবেষকদের «» নিজের টাকায় শিশুদের জীবন দান করা ডা. কফিল খান বকেয়া বেতনও পাচ্ছেন না «» ডাক্তারদের আত্মরক্ষা আন্দোলনের জেরে হাসপাতালগুলো এবার পুলিশি সুরক্ষা পেল

জাপানের সহায়তায় নির্মাণ হচ্ছে নার্সিং কলেজ ও ক্যান্সার রিসার্চ সেন্টার

জাপান বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে নির্মাণ হচ্ছে নার্সিং কলেজ ও ক্যান্সার রিসার্চ সেন্টার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাপান সফরে এ বিষয়ে একটি যৌথ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

এই চুক্তির আওতায় জাপান বাংলাদেশে একটি ক্যান্সার হাসপাতাল, একটি নার্সিং কলেজ এবং একটি মেডিকেল টেকনোলোজি প্রতিষ্ঠান রিসার্চ সেন্টার প্রতিষ্ঠার জন্য ২ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে।

জাপান গ্রিণ হসপিটাল, আইচি হসপিটাল লিমিটেড ও এথিক্স অ্যাডভান্সড টেকনোলোজি লিমিটেড (ইএটিএল) একটি ক্যান্সার হাসপাতাল, একটি নার্সিং কলেজ এবং একটি ক্যান্সার রিসার্চ সেন্টার নির্মাণে এ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

দুই দেশের এই চুক্তির মাধ্যমে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ক্যান্সার হাসপাতাল দেশবাসীর অনেক কষ্ট লাঘব করবে বলে আশা প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী।
চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম ও জাপানে অবস্থিত বাংলাদেশের অ্যামবাসাডর রাবাব ফাতিমা প্রমুখ।

ত্রি-পক্ষীয় চুক্তিটি স্বাক্ষর করেন জাপান গ্রিন হসপিটালের পক্ষে হিরোয়িকি কোবায়িশি, আইচি হসপিটাল লিমিটেপের ড. মোয়াজ্জেম হোসেন ও ইএটিএল এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর এমএ মুবিন খান।

এই চুক্তির মাধ্যমে অচিরেই দেশবাসী ক্যান্সারের সর্বাধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর চিকিৎসা পাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

এই ক্যান্সার হাসপাতালে জাপানের অত্যাধুনিক প্রযুক্তি প্রোটন থেরাপি দিয়ে ক্যান্সার রোগের চিকিৎসা করা হবে, যা এখন পর্যন্ত ব্যাংকক ও সিঙ্গাপুরেরও কোন হাসপাতালে নেই।

এই অত্যাধুনিক প্রযুক্তি প্রোটন থেরাপি জাপানে ক্যান্সার চিকিৎসায় বিরাট পরিবর্তন দেখিয়েছে, যা এই হাসপাতালের মাধ্যমে প্রথমবারের মত বাংলাদেশে নিয়ে আসা হবে।

এই প্রযুক্তি কোন রকম পার্শপ্রতিক্রিয়া ছাড়া ক্যান্সার টিউমারের ওপর প্রভাব ফেলতে সক্ষম। মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ধীরে ধীরে সব ধরনের ক্যান্সাসের জীবাণুকে ধ্বংস করতে কাজ শুরু করে প্রোটন থেরাপি।

জাপান গ্রিন হসপিটাল, একই গ্রুপ শিপ আইচি মেডিকেল সার্ভিস লিমিটেডের মাধ্যমে ইতোমধ্যে বাংলাদেশে দেশের হার্ট ও কিডনি রোগের চিকিৎসায় ১ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে। যার আওতায় দেশের উত্তরায় একটি হাসপাতাল নির্মাণাধীন। সেটি ২০২০ সালের জানুয়ারিতে উদ্বোধন করা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :